লোকসভা নির্বচনের চতুর্থ পর্যায়ের প্রচারাভিযান ক্রমশঃ জোরদার হচ্ছে

For Sharing

লোকসভা নির্বচনের চতুর্থ পর্যায়ের প্রচারাভিযান ক্রমশঃ জোরদার হয়ে উঠছে। বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের শীর্ষ নেতারা ভোটারদের মন জয় করতে বিভিন্ন সভা সমাবেশ এবং রোড শো করছেন।

২৯শে এপ্রিল এই পর্যায়ে ভোট নেওয়া হবে।

শীর্ষ বিজেপি নেতা এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি গতকাল বারানসীতে এক রোড শোয়ের নেতৃত্ব দেন। আজ তিনি বারানসী লোকসভা কেন্দ্র থেকে তাঁর মনোনয়ন পত্র জমা দেবেন।

আমাদের সংবাদদাতা জানাচ্ছেন বেনারস হিন্দু বিশ্ব বিদ্যালয়ের বিখ্যাত লংকাগেট থেকে রোড শো শুরু করার আগে শ্রী মোদি বি এইচ ইউ এর প্রতিষ্ঠাতা পন্ডিত মদন  মোহন মালব্যর প্রতি তাঁর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

এর আগে গতকাল শ্রী মোদি উত্তর প্রদেশের বান্দা এবং বিহারের দারভাঙ্গায় জনসভা করেন।

বিরোধীরা জাতিবাদ এবং আঞ্চলিকতাবাদের রাজনীতি করছেন বলে তিনি অভিযোগ করেন। সন্ত্রাসবাদের অবসানের বিষয়ে তাঁর দলের সংকল্পের কথা ব্যক্ত করে তিনি জঙ্গীদের মোকাবিলায় কোনো নীতি না থাকার জন্য বিরোধীদের কঠোর সমালোচনা করেন।

বিজেপি সভাপতি অমিত শা বলেছেন তাঁর দল ভোট ব্যাংকের রাজনীতিতে বিশ্বাস করে না। উত্তর প্রদেশের অউরাইয়ায় এক জনসভায় ভাষণ দিয়ে তিনি বলেন বিজেপির কাছে দেশের নিরাপত্তা হল প্রথম অগ্রাধিকার এবং শ্রীমোদির সরকার পাকিস্তানকে উপযুক্ত জবাব দিচ্ছে। এর আগে অমিত শাহ গাজিপুরে সমাবেশ করেন।

কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী গতকাল আজমেরে এক জনসভায় ভাষণ দিয়ে বলেন ন্যয় যোজনা তৈরি করার আগে তাঁর দল বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদদের সঙ্গে ব্যাপক পরামর্শ করেছে।

তিনি অভিযোগ করেন যে বিমুদ্রায়ণ এবং জি এস টি গরীব, শ্রমিক এবং ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের টাকা লুট করেছে।

রাহুল গান্ধী রাজস্থানের জালোর এবং কোটায়ও জনসভা করেন।

কংগ্রেস সাধারণ সম্পাদক প্রিয়ংকা গান্ধী ভাদ্রা উত্তর প্রদেশের বুন্দেলখন্ডে তাঁর সফরের দ্বিতীয় দিনে গতকাল  ঝাঁসী এবং জালাউনে রোড শো করেন।