সক্রিয় কোভিড-১৯ সংক্রমণ গত দেড় মাসের মধ্যে প্রথমবারের মতো ৮ লক্ষের নিচে  

For Sharing

স্বাস্থ্য মন্ত্রক বলেছে যে সক্রিয় কোভিড-১৯ সংক্রমণ গত দেড় মাসের মধ্যে প্রথমবারের মতো ৮ লক্ষের নিচে নেমে আসায় ভারতে সংক্রমণ প্রতিরোধে এক নতুন মাত্রায় এসেছে। এক টুইট বার্তায় মন্ত্রক বলেছে যে কেন্দ্রের নেতৃত্বাধীন লক্ষ্যভিত্তিক কৌশল গ্রহণের ফলেই এই ফলাফল পাওয়া গিয়েছে যাতে সংক্রামিত মানুষ ব্যাপক হারে সুস্থ হয়ে উঠছেন এবং এই সংক্রমণে মৃত্যুর সংখ্যায় কমেছে।   

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী ডক্টর হর্ষ বর্ধনের পৌরোহিত্যে গতকাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিভাগের স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানের  এবং সিএসআইআর-এর প্রধানদের সঙ্গে  কোভিড মোকাবিলার বিষয়ে একটি বৈঠক হয়। ডক্টর হর্ষবর্ধন  এই সমস্ত প্রতিষ্ঠান নির্ধারিত কাজের বাইরে গিয়েও যে কাজ তারা করেছেন তার জন্য এই সব সংস্থার বিজ্ঞানীদের প্রশংসা করেন এবং বলেন যে বিশ্বে ৯ টি টীকা বর্তমানে চূড়ান্ত পর্যায়ের রয়েছে। তিনি বলেন, ভারতেও তিনটি টীকা নিয়ে কাজ হচ্ছে যার মধ্যে একটি তৃতীয় পর্যায়ের ক্লিনিকাল ট্রায়ালে রয়েছে এবং আরও দুটি টীকা দ্বিতীয় পর্যায়ের ট্রায়ালে রয়েছে।  তিনি আশা প্রকাশ করে বলেন যে শীঘ্রই ভারতে করোনা টীকার দেশীয় উত্পাদন হবে। কোভিডের বিরুদ্ধে লড়াই এখনও শেষ হয়নি বলে ইঙ্গিত করে ডক্টর হর্ষ বর্ধন লোকজনকে কোভিড-১৯ সংক্রমণের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের প্রতি আত্মতুষ্টি, অসতর্কতা এবং নৈমিত্তিক মনোভাবের বিরুদ্ধে সতর্ক করেন। তিনি বলেন যে শীতের  সময় এবং উত্সব মরসুমের কারণে পরের আড়াই মাস আমাদের জন্য করোনার বিরুদ্ধে লড়াই অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে। তিনি জানান, সংক্রমণের বিস্তার রোধে যথাযথ আচরণ অনুসরণ করা প্রতিটি নাগরিকের কর্তব্য।